দুই লঞ্চের সংঘর্ষে ২০ জন আহত

পটুয়াখালীর বাউফলের ধুলিয়া ঘাটে দুই লঞ্চের সংঘর্ষে লঞ্চ ও পন্টুনে অবস্থানরত অন্তত ২০ যাত্রী আহত হয়েছেন।

রোববার (১৭ জুলাই) সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে বাউফল উপজেলার ধুলিয়া লঞ্চঘাটে কালাইয়া টু ঢাকাগামী এমভি বন্ধন ৫ ও ধুলিয়া-১ দোতালা লঞ্চের সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার সময় লঞ্চে অবস্থানরত ও পন্টুনে অপেক্ষমান শিশু ও বৃদ্ধসহ কমপক্ষে ২০ জন যাত্রী আহত হন।

লঞ্চ যাত্রী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, লঞ্চ দুটো বাউফলের কালাইয়া ঘাট থেকে ওইদিন বিকেল সাড়ে ৩টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে প্রতিযোগিতামূলক চালিয়ে সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে ধুলিয়া লঞ্চ ঘাটে ভিড়তে গিয়ে বন্ধন ৫ লঞ্চটি, ধুলিয়া ১ লঞ্চকে সজোরে ধাক্কা দেয়। সেই ধাক্কা লাগে পন্টুনেও।

ধুলিয়া ১ লঞ্চের যাত্রী হাসান সিকদার জানান, এ ঘটনায় দুই বছরের শিশু মারজিয়া, তার বাবা মেহেদি হাসান (৩২), আশ্রাফ গাজীসহ (৫০) ২০ জন আহত হয়েছেন।

গুরুতর আহত পাঁচজনকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে মারজিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ধুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হুমায়ুন দেওয়ান জানান, পৌনে সাতটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মামুন জানান, আহত ১৬ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরমধ্যে পাঁচজন গুরুতর আহত। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই লঞ্চ দুটো ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। আহতদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।