বোনকে বাঁচাতে গিয়ে ভাই ইভটিজারদের মারধরের শিকার

শনিবার রাত থেকে ভিডিওটি বিভিন্ন জনের ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। নির্মমভাবে প্রহারের দৃশ্য দেখে সর্বমহলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। গত ৩১ মে কক্সবাজারের খুরুশকুলে এ ঘটনা ঘটলেও তা প্রকাশ পায় শনিবার।

মারধরের শিকার আব্দুল মোনাফ জানান, “আশ্রয়ণ প্রকল্পে পাওয়া ফ্ল্যাটে তারা থাকেন। ওই দিন তার বোন মামার বাড়ি যাচ্ছিল। পথে খুরুশকুল মনুপাড়ার জামাল-রায়হানরা তার বোনকে নোংরা ভাষায় কথা বলছিল। এক পর্যায়ে বোন ফিরে আসতে চাইলে তারা বার বার পথ আটকাচ্ছিল। আমি প্রকল্প থেকে এসব দেখে দৌড়ে আসি।”

কক্সবাজারে বোনের ইজ্জত বাঁচাতে গিয়ে ইভটিজারদের মারধরের শিকার হয়েছেন ভাই। নির্মমভাবে প্রহারের এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। 

“জিজ্ঞেস করার সঙ্গে সঙ্গে তারা আমার বোনকে লাঠি দিয়ে আঘাত করতে থাতে। তখন আমি বোনকে জড়িয়ে ধরি। তাকে কেন মারছে জানতে চাইলে তারা আমাকেও মারধর শুরু করে।”

মোনাফ আরও জানান, ব্যাপক প্রহারে আহত হয়ে তিনি হাসপাতালে যান। পরে থানায় অভিযোগও দেন। কিন্তু পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। ব্যবস্থা না হওয়ায় ওই হামলাকারীরা আরও বেপরোয়া হয়ে ফের মারধরের হুমকি দিচ্ছে।

এদিকে, ভিডিওটি ভাইরাল হলে টনক নড়ে পুলিশের অন্যদিকে পালিয়ে গেছে হামলাকারীরা।

তবে অভিযোগ দেয়া নিয়ে ওই যুবকের দাবিকে সত্য নয় বলে দাবি করেছে পুলিশ। কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (অপারেশন) নাছির উদ্দিন মজুমদার বলেন, “আমরা এমন ঘটনার কোনো অভিযোগ পায়নি। তবে শনিবার রাতে ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।”