পুতিন আর মাত্র ৩ বছর বাঁচবেন, দাবি গোয়েন্দা কর্মকর্তার

রাশিয়ার একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা দাবি করেছেন, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দেহে ‘দ্রুত ক্যানসার ছড়িয়ে পড়ছে’ এবং চিকিৎসক তাকে তিন বছর সময় দিয়েছেন। অর্থাৎ, আর মাত্র তিন বছর বাঁচবেন রুশ প্রেসিডেন্ট।

রাশিয়ান ফেডারেল সিকিউরিটি সার্ভিসের (এফএসবি) ওই কর্মকর্তা আরও দাবি করেন, ৬৯ বছর বয়সী পুতিন দৃষ্টিশক্তিও হারিয়ে ফেলছেন। যদিও ওই রুশ কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্ট।

ভ্লাদিমির পুতিনের স্বাস্থ্যের দ্রুত অবনতি হচ্ছে বলে ক্রমবর্ধমান জল্পনা-কল্পনার মধ্যেই এমন খবর প্রকাশ পেল। যদিও রোববার (২৯ মে) রুশ প্রেসিডেন্টের অসুস্থ হওয়ার খবর অস্বীকার করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। পুতিন পুরোপুরি সুস্থ আছেন বলে দাবি তার।

তবে ইন্ডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, এফএসবির ওই কর্মকর্তা বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী সাবেক রাশিয়ান গুপ্তচর বরিস কার্পিচকভকে পাঠানো এক বার্তায় পুতিনের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সবশেষ তথ্যই জানিয়েছেন।

এফএসবি কর্মকর্তার পাঠানো সেই বার্তার কিছু অংশ প্রকাশ করেছে অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম নিউজ ডটকম ডট এইউ। এতে বলা হয়, ‘আমাদের বলা হয়েছে যে তিনি (পুতিন) তীব্র মাথাব্যথায় ভুগছেন। এমনকি তিনি টিভিতে উপস্থিত হয়ে কী বলবেন তা পড়ার জন্য কাগজে বিশাল অক্ষরে সবকিছু লিখে দেয়ার প্রয়োজন হয়। তার দৃষ্টিশক্তি দিন দিন মারাত্মকভাবে খারাপের দিকে যাচ্ছে।’

এ ছাড়া সংবাদমাধ্যম মেট্রো ও এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, ‘পুতিনের হাত সব সময় অনিয়ন্ত্রিতভাবে কাঁপতে থাকে।’

চলতি মাসের শুরুর দিকে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ‘পুতিনের পেট থেকে তরল অপসারণের জন্য একটি অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। ভালোভাবে এবং কোনো জটিলতা ছাড়াই অস্ত্রোপচারটি শেষ হয়েছে।’

তবে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ল্যাভরভ রাশিয়ান প্রেসিডেন্টের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সব ‘গুজব’ অস্বীকার করে বলেছেন, আমি মনে করি না যে বিবেকবান কোনো ব্যক্তি এসব খবর বিশ্বাস করবেন। আগামী অক্টোবরে ৭০ বছরে পা রাখা পুতিন ‘প্রতিদিন’ জনসমক্ষে উপস্থিত হন, গুরুতর কোনো অসুস্থতা থাকলে যা কোনোভাবেই সম্ভব না।