মায়ের নিখোঁজ সংবাদ শুনে সাইকেলে ২৩০ কিলোমিটার পথ পাড়ি সন্তানের

মায়ের নিখোঁজ সংবাদ শুনে লকডাউনের মধ্যে ঢাকা থেকে সাইকেল চালিয়ে ২৩০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে বাড়ি পৌঁছেছে ছেলে। টানা ১৪ ঘণ্টা সাইকেল চালানোর পর রবিবার মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লঙ্গুরপাড় গ্রামের বাড়ি ফেরে একমাত্র সন্তান সোহেল আহমেদ (২৮)। আত্মীয়স্বজনের বাড়িসহ সব জায়গায় খোঁজ করেও মায়ের কোনো সন্ধান পাননি সোহেল।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের লংগুরপাড় গ্রামের মানিক মিয়ার স্ত্রী হাজেরা বিবি ওরফে কুঠিল (৪৮)। গত বুধবার রাতে একই গ্রামে অবস্থিত বড় ভাই আসিদ আলির বাড়িতে রাতের খাবার খেয়ে হাজেরা বিবি প্রতিবেশী রকিব মিয়ার বাড়িতে রাত্রি যাপন করেন। বৃহস্পতিবার ভোরে ঘুম থেকে উঠে রকিব মিয়ার স্ত্রীকে চা বানাতে বলে ঘর থেকে বেরিয়ে যান। রকিব মিয়ার স্ত্রী চা বানাতে গেলেও হাজেরা বিবি আর ফেরেননি।

দিকে সকাল পেরিয়ে দুপুর গড়িয়ে গেলেও হাজেরা বিবি বাড়িতে না ফেরায় হাজেরার নাতিন শাম্মী (১০) বাড়ির পাশেই দাদা আসিদ আলির বাড়িতে গিয়ে দাদির খোঁজ করে। পরে খোঁজ নিয়েও কোনো সন্ধান না পেয়ে আসিদ আলী শুক্রবার বিকালে কমলগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়ারি করেন। সোহেলের খালাতো ভাই সেলিম মিয়া জানান, প্রায় ২০-২৫ বছর আগে একইভাবে সোহেলের পিতা মানিক মিয়া নিখোঁজ হয়েছিলেন। যার সন্ধান এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানা জানান, এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়ারি করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়া গৃহবধূকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।